সর্বশেষ সম্পাদনা: ৮ ডিসেম্বর ২০২০, সকাল ১১:৫৪

মায়ের বুকের দুধের উপকারিতা

নবজাতক ও পরবর্তী দুই বছরের জন্য মায়ের বুকের দুধ সর্বশ্রেষ্ঠ খাবার। মায়ের বুকের দুধের উপকারিতা নিয়ে কোন প্রশ্ন নাই। রিতা আছে। সবই বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক গবেষণায় প্রমানিত। মায়ের বুকের দুধ খাওয়ানো শিশুর, মায়ের, পরিবার বা দেশের জন্য লাভজনক। বিস্তারিত আলোচনা করা কঠিন। কিন্তু সবারই ধারণা থাকা দরকার। কারণ, সবার সহযোগিতা না পেলে বিশেষ করে নতুন মায়েদের জন্য বুকের দুধ খাওয়ানো কঠিন। প্রথম ৬ মাস শুধুমাত্র বুকের দুধ খাওয়ানো ক্ষেত্রে তা আরো সত্য।  মায়ের বুকের দুধের উপকারিতা থেকে অল্প কিছু এখানে উল্লেখ করছিঃ

সব দিক থেকে সহায়তা না পেলে নতুন মায়েদের জন্য বুকের দুধ খাওয়ানো কঠিন। বিশেষ করে প্রথম ৬ মাস শুধুমাত্র বুকের দুধ খাওয়ানো ক্ষেত্রে।

শিশুর জন্যঃ

১। শুধুমাত্র জন্মের ১ ঘন্টার মধ্যে শিশুকে মায়ের দুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে নবজাতকের মৃত্যু হার ৩১% কমে।
২। মায়ের দুধে আছে প্রচুর আমিষ, ভিটামিন-এ, বি-১২, ভিটামিন-ই, জিংক এবং আই জি-এ (Ig A) নামক যা রোগে প্রতিরোধ করে।
৩। শালদুধ রোগ প্রতিরোধের সক্রিয় কোষ, এন্টিবডি ও অন্যান্য প্রতিরক্ষামূলক প্রোটিন সমৃদ্ধ। এটি শিশুর প্রথম টিকা হিসাবে কাজ করে। শালদুধ শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ও বিভিন্ন সংক্রামক থেকে শিশুকে দ্রুত রক্ষা করে।
৪। শিশুর পূর্ণ ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শরীর গঠন ও বৃদ্ধির জন্য সকল উপাদান শুধুমাত্র মায়ের দুধেই থাকে ফলে শিশুর মানসিক বিকাশ সঠিক হয়, শিশু বুদ্ধিমান হয় এবং সুস্থ থাকে।

মায়ের জন্যঃ

 ১। বুকের দুধ খাওয়ানোর জন্য কোন প্রকার প্রস্তুতি প্রয়োজন হয় না। তৈরি করারও প্রয়োজন নাই। এজন্য মায়ের কষ্ট কম হয়। বিশেষ করে প্রথম ৬ মাসে তো কিছুই করার প্রয়োজন হয় না।

২। তাড়াতাড়ি শালদুধ খাওয়ালে মায়ের গর্ভভুল দ্রুত পড়তে সাহায্য করে এতে মায়ের রক্তক্ষরণ কম হয় ফলে মা রক্তস্বল্পতা থেকে রক্ষা পায়।

৩। শিশুর ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শুধুমাত্র মায়ের দুধ খাওয়ালে ঐ সময়ে মায়ের গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে এবং পরবর্তীতে মায়ের স্তন ক্যান্সার, জরায়ুর ক্যান্সার, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ এবং স্থুলতা হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

পরিবারের জন্যঃ

১। মায়ের বুকের দুধ খাওয়ালে ফর্মুলা বা অন্য খাবারের পিছনে খরচ কমে যায়। এতে আর্থিকভাবে পরিবার লাভবান হয়।

২। শিশু মায়ের বুকের দুধ খাওয়ার কারণে কম অসুস্থ হয়। চিকিৎসার জন্যও খরচ কম হয়।

Leave a Comment